ঢাকা, শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২ | ৮ মাঘ ১৪২৮ | ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিচারিক ক্ষমতা হারালেন কামরুন্নাহার

বিচারিক ক্ষমতা হারালেন কামরুন্নাহার

ফাইল ছবি

একটি ধর্ষণ মামলায় সম্প্রতি অসাংবিধানিক পর্যবেক্ষণ দেওয়ায় বিচারিক ক্ষমতা হারিয়েছেন ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোছাম্মত কামরুন্নাহার।

আজ রোববার সুপ্রিম কোর্টের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে প্রধান বিচারপতি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ বিচারপতিদের সঙ্গে আলোচনা করে ১৪ই নভেম্বর সকাল সাড়ে নয়টা থেকে ট্রাইব্যুনালের ওই বিচারককে আদালতে না বসার নির্দেশ দিয়েছেন। একইসাথে বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাকে বদলি করে আইন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত করার সুপারিশ করা হয়েছে।

এদিকে, অ্যাটর্নি জেনারেল আমিন উদ্দিন জানিয়েছেন, ধর্ষণের ৭২ ঘণ্টা পার হলে পুলিশকে মামলা না নিতে বিচারক কামরুন্নাহার যে মতামত দেন তা তার এখতিয়ার বহির্ভূত। একইসাথে রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের মামলায় তার দেয়া রায়ের বিরুদ্ধেআপিল করবে রাষ্ট্রপক্ষ।

রাজধানীর বনানীতে রেইনট্রি হোটেলে দুই নারীকে ধর্ষণের বহুল আলোচিত মামলায় গত বৃহস্পতিবার পাঁচ আসামির সবাইকে খালাস দিয়ে রায় দেন বিচারক কামরুন্নাহার। রায়ের পর্যবেক্ষণে ঘটনার ৩৮ দিন পর ধর্ষণের মামলা করার যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। ঘটনার ৭২ ঘণ্টা পর মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হলে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায় না উল্লে­খ করে ওই সময়ের পর পুলিশকে কোনো ধর্ষণ মামলা না নিতেও পরামর্শ দেন বিচারক।

এমএস