ঢাকা, শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২ | ৮ মাঘ ১৪২৮ | ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নটরডেমের ছাত্রকে চাপা দেওয়া সেই ট্রাক চালক আটক

নটরডেমের ছাত্রকে চাপা দেওয়া সেই ট্রাক চালক আটক

ফাইল ছবি

রাজধানীর গুলিস্তান চত্বরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার ট্রাকের ধাক্কায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের মৃত্যু ঘটনায় অভিযুক্ত চালককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। তার নাম হারুন মিয়া। তিনি মূলত অবৈধ পন্থায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) থেকে ময়লার ট্রাক বরাদ্দ নিয়ে পরিচ্ছতাকর্মী রাসেল খানকে দিয়ে গাড়িটি চালাতেন। নাঈমের মৃত্যুর পর গ্রেপ্তার এড়াতে আত্মগোপনে যান হারুন।

আজ শুক্রবার র‍্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

র‍্যাব-৩-এর সহকারী পুলিশ সুপার ফারজানা হক বলেন, শুক্রবার ভোরে যাত্রাবাড়ী থেকে হারুনকে গ্রেফতার করে র‍্যাব-৩-এর একটি দল। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হবে।

এর আগে ডিএসসিসি ময়লাবাহী গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় গাড়িচালক রাসেলকে। পরে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তার ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএমপির পল্টন মডেল থানার সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আ: আহাদ জানান, ঘাতক গাড়িটি চালাচ্ছিলেন রাসেল খান। কিন্তু তিনি প্রকৃতপক্ষে ওই গাড়ির চালক নন। রাসেল জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, গাড়িটির মূল চালক হারুন।

তিনি জানান, বরাদ্দ গাড়ি নিজে না চালিয়ে নিয়মবহির্ভূতভাবে অন্যকে চালাতে দেয়ায় করপোরেশনের গাড়িচালক মো: ইরান মিয়ার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের ও সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

গত ২৪ নভেম্বর বেলা ১১টা ২০ মিনিটে পল্টন মডেল থানার গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু স্কয়ার গোলচত্বরের দক্ষিণ পাশে নাঈম হাসান (১৮) রাস্তা পার হওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। সে সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের একটি ট্রাক বেপরোয়া গতিতে নাঈমকে ধাক্কা দেয়। ওই সময় চালক ছিলেন চালক রাসেল খান।

এরপর নাঈমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাকে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

দুর্ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকার টহল পুলিশ ও পথচারীরা ট্রাকের চালক রাসেল খান ও গাড়ির ভেতরে থাকা পরিচ্ছন্নতাকর্মী গোলাম রব্বানী ও বেলালকে আটক করে।

সেখান থেকে পুলিশ তাদের হেফাজতে নেয় ও ময়লার গাড়ি জব্দ করে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন ও ময়নাতদন্ত শেষে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহতের বাবা শাহ আলম দেওয়ান এ ঘটনায় মামলা করেছেন। রাসেল ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নিয়োগপ্রাপ্ত চালক না। গাড়িটির নিয়োগপ্রাপ্ত চালক হারুন রাসেল খানকে বদলি হিসেবে চালাতে দেন। গ্রেফতার চালক রাসেল খান ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখাতে পারেনি।

এমএস