ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২ | ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ | ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

টেনিস থেকে বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া

টেনিস থেকে বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া

ফাইল ছবি

অনেক দিন ধরেই ইনজুরিতে ভুগছেন তিনি। এবার অবসরের ভাবনা ঢুকে পড়েছে ভারতীয় টেনিস সুন্দরী সানিয়া মির্জার মনে। বুধবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নারীদের ডাবলসের প্রথম রাউন্ডেই হেরে বিদায় নেয়ার পর অবসরের কথা ঘোষণা দিলেন হায়দরাবাদের টেনিস আইকন সানিয়া।

ম্যাচ হেরে সংবাদ সম্মেলনে সানিয়া বলেন, ‘আমি আমার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চলতি মৌসুম আমার শেষ মৌসুম। এরপর সপ্তাহ ধরে ধরে এগোতে চাই। খেলা চালিয়ে যেতে চাই বছরের শেষ পর্যন্ত। তবে খেলতে পারব কি না জানি না।’ 

নাদিয়া কিচেনককে নিয়ে ডাবলসে নেমেছিলেন সানিয়া। প্রথম রাউন্ডের এই ম্যাচে সানিয়া-নাদিয়া হেরে যায় কাজা জুভান এবং তামারা জিদানসেক জুটির কাছে।

সানিয়া জানিয়েছেন, বেশ কয়েকটি কারণে টেনিস থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। তার প্রথম কারণ অবশ্যই ফিটনেস। 

ভারতীয় টেনিস সুন্দরী বলেছেন, ‘রিকভারিতে এখন অনেক বেশি সময় লাগছে। আজ যখন খেলছিলেন আমার হাঁটুতে যন্ত্রণা হচ্ছিল। আগের মত আর এনার্জি পাচ্ছি না। পাশাপাশি তিন বছরের ছেলের কথাটাও মাথায় রাখতে হচ্ছে। কারণ ওকে সঙ্গে নিয়ে দেশ-বিদেশে ঘুড়তে হচ্ছে। সেদিকেও এবার নজর দেওয়ার সময় এসেছে। তবে চলতি মৌসুমটা খেলতে চাই। কারণ কোর্টে ফেরার জন্য অনেক পরিশ্রম করেছি। চাই সব মায়েদের জন্য একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে। যাতে সব মায়েরা নিজেদের স্বপ্ন সত্যি করার চেষ্টা অন্তত করতে পারে।’

সানিয়া মির্জা ভারতের প্রথম মহিলা টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতেন। এছাড়া এশিয়ান গেমস এবং কমনওয়েলথ গেমসেও রয়েছে পদক। সবশেষ ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জিতেছিলেন গ্র্যান্ড স্ল্যাম। সেবার জুটি বেঁধেছিলেন মার্টিনা হিঙ্গিসের সঙ্গে। সানিয়ার ঝুলিতে রয়েছে মোট ৬টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম। ডাবলস এবং মিক্সড ডাবলসে তিনটি করে। ২০১৮ থেকে অনেকটা অনিয়মিত হয়ে পড়েন সানিয়া। তবে ২০২১ সালের অস্ত্রাভা ওপেনে খেতাব জেতেন। 

২০০৩ সাল থেকে পেশাদার সার্কিটে আসেন সানিয়া মির্জা। বর্তমানে তাঁর র‍্যাঙ্কিং ৬২। মোট ৪৩টি খেতাব জিতেছেন সানিয়া। ডাবলসে তাঁর জয় ৬৯.৪ শতাংশ। 

এএইচ