ঢাকা, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পণ্য রপ্তানিতে বাংলাদেশকে ট্রানজিট দিয়েছে ভারত

পণ্য রপ্তানিতে বাংলাদেশকে ট্রানজিট দিয়েছে ভারত

ফাইল ছবি

নির্দিষ্ট বন্দর বা স্থল কাস্টমসের মাধ্যমে পণ্য রপ্তানিতে বাংলাদেশকে ট্রানজিট ও ট্রান্সশিপমেন্ট সুবিধা দিয়েছে ভারত। এ জন্য ভারত কোনো মাসুল নেবে না। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে দুই দেশের শীর্ষ বৈঠকে ভারতের পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে।

বুধবার প্রকাশিত দুই দেশের ৩৩ দফা যৌথ বিবৃতিতে বিষয়টি স্থান পেয়েছে।

যৌথ বিবৃতিতে সীমান্তে মৃত্যুর সংখ্যা শূন্যে নামিয়ে আনতে উভয় পক্ষের কাজ করার অঙ্গীকার রয়েছে। শীর্ষ বৈঠকে বাংলাদেশ দ্রুত তিস্তা সই করতে ভারতকে  তাগিদ দিয়েছে। ভারত তাগিদ দিয়েছে ফেনী নদীর পানিবণ্টন চুক্তি সইয়ের জন্য।

যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ও ভারত রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা, প্রতিরক্ষা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, বাণিজ্য ও সংযোগ, পানিসম্পদ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, উন্নয়ন সহযোগিতা, সাংস্কৃতিক এবং মানুষে মানুষে যোগাযোগ, পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন, সাইবার নিরাপত্তা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি), মহাকাশ প্রযুক্তি, শক্তি এবং সমুদ্র অর্থনীতির মতো সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্রে সহযোগিতা করতে সম্মত হয়েছে।

এএইচ