ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ | ১২ শা‘বান ১৪৪৫

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমার ইতিবাচকভাবে সাড়া দিচ্ছে না: প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমার ইতিবাচকভাবে সাড়া দিচ্ছে না: প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

মিয়ানমারে হত্যা-নিপীড়নের শিকার রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ মানবিক কারণে আশ্রয় দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কাতারের দোহায় স্বল্পোন্নত দেশগুলোর পঞ্চম জাতিসংঘ সম্মেলনের ফাঁকে আলজাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন শেখ হাসিনা।

আলজাজিরার সাংবাদিক নিক ক্লার্কের নেয়া সাক্ষাৎকারটির সংক্ষিপ্ত একটি অংশ ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার করেছে সংবাদমাধ্যমটি। পূর্ণাঙ্গ সাক্ষাৎকারটি আগামী শনিবার সম্প্রচার করা হবে।

সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রিত এই শরণার্থীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে বাংলাদেশ আলোচনা শুরু করলেও মিয়ানমার ইতিবাচকভাবে সাড়া দিচ্ছে না। শরণার্থীদের অনেকে যে নিজেদের মধ্যেও সংঘাত-সংঘর্ষে লিপ্ত এবং মাদক, মানবপাচারসহ নানা অপরাধে জড়াচ্ছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ড ও পরিস্থিতির বিষয়ে নিক ক্লার্কের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিপীড়ন শুরু হলে তারা নির্যাতন, হত্যা ও ধর্ষণের শিকার হয়। সেখানে তখন অনেক কিছুই ঘটেছে। এটা আমাদের খুব খারাপ লেগেছিল। এরপর আমরা সীমান্ত খুলে দিয়ে তাদের আসতে দিই। পাশাপাশি আমরা মানবিক কারণে তাদের সবার জন্য আশ্রয় ও চিকিৎসা দিই। ক্যাম্পের পরিবেশ খুব ভালো নয়। তবে আগুনের ঘটনাটি অতি সাম্প্রতিক।’

শেখ হাসিনা আরো বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি খুবই কঠিন। কারণ সারা বিশ্বের মনোযোগ এখন রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এবং দেশটির উদ্বাস্তুদের দিকে।

এএইচ