ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ | ১২ শা‘বান ১৪৪৫

সাইবার নিরাপত্তা আইনের চূড়ান্ত খসড়ায় যে পরবির্তন এসেছে

সাইবার নিরাপত্তা আইনের চূড়ান্ত খসড়ায় যে পরবির্তন এসেছে

ছবি: গ্লোবাল টিভি

মিঠুন সরকার: সাইবার নিরাপত্তা আইন, ২০২৩-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

নীতিগত অনুমোদনের পর আইন মন্ত্রণালয় থেকে ভেটিং শেষ করে সোমবার (২৮ আগস্ট) মন্ত্রিসভায় উত্থাপন করা হয় আইনটি। আইনটি চূড়ান্ত অনুমোদনে সাজার মেয়াদ কমানো হয়েছে। চূড়ান্ত অনুমোদনে অনেকগুলো অজামিনযোগ্য ধারাকে জামিনযোগ্য করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নাম পরিবর্তন করে সরকার ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন, ২০২৩’ করা উদ্যোগ নেয়। এজন্য গত ৭ আগস্ট সাইবার নিরাপত্তা আইনের খসড়া নীতিগত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। 

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অনেকগুলো ধারা, যেমন-মানহানির যে ধারাটা ছিল, সেই ধারায় আগে শাস্তি ছিল কারাদণ্ড। এখন জরিমানার বিধান করা হয়েছে। অর্থাৎ মানহানির একমাত্র সাজা জরিমানা। এখন জরিমানা যদি না দেয়া হয়, তাহলে কারাদণ্ড থাকবে। সেটাও জরিমানার ওপর ভিত্তি করে তিন মাস বা ছয়মাসের কারাদণ্ড থাকবে। কিন্তু মূল শাস্তি হচ্ছে জরিমানা। জরিমানা আগে সর্বোচ্চ ছিল ৫ লাখ টাকা, এখন তা বাড়িয়ে ২৫ লাখ টাকা করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, সাইবার সিকিউরিটি আইনের ২১ ধারাসহ দুইটি ধারা জামিনযোগ্য করা হয়েছে। এখন কারিগরি ধারা ছাড়া খসড়া আইনের আর কোনো ধারা অজামিনযোগ্য নেই।