ঢাকা, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ১ বৈশাখ ১৪৩১ | ৫ শাওয়াল ১৪৪৫

রাশিয়ার মুদ্রা ব্যবহার অর্থনীতির জন্য সহায়ক হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রাশিয়ার মুদ্রা ব্যবহার অর্থনীতির জন্য সহায়ক হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

গ্লোবাল টিভি ছবি

মিঠুন সরকার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, রুবল বিনিময়ের বিষয়ে রুশ রাষ্ট্রদূত আমাদের সঙ্গে কিছুটা আলোচনা করেছেন। আমরা যদি এটা করতে পারি, তাহলে নির্দিষ্ট কোনো কারেন্সির বিষয়ের উপর আমাদের ডিপেন্ডেন্সি কমবে। এটি আমাদের অর্থনীতির জন্য অবশ্যই  সহায়ক হবে।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন রুশ রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ম্যানতিতস্কি। সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এগুলোর সবকিছু ফরেন মিনিস্ট্রির হাতে নয়। আমরা যেটি করতে পারব বলে আশা করছি, সেটি হচ্ছে ইনফরমেশন কমিউনিকেশন টেকনোলজিতে কো-অপারেশন। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র রাশিয়ার অর্থায়নে ও টেকনোলজিক্যাল সাপোর্টে আমরা নির্মাণ করেছি। এটি খুব সহসাই উৎপাদনে যাবে। আমরা নিউক্লিয়ার ন্যাশন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছি। এছাড়া রাশিয়া আমাদের দেশ থেকে অনেক কিছু আমদানি করে। আমরা রাশিয়া থেকে গমসহ অন্যান্য পণ্য আমদানি করি। বাণিজ্য বাস্কেট আরও বিস্তৃত করার জন্য আমরা আলোচনা করেছি। 

তিনি বলেন, ডুয়েল কারেন্সিতে বিনিময় করার জন্য আমরা অনেক দেশের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ভারতের সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে, চীনের সঙ্গেও আলোচনা হচ্ছে। ভারতের সঙ্গে আলোচনা আমরা কিছুটা শুরুও করেছি।

তিনি বলেন, বিএনপি অনেক কথা বলেছে। এ পার্লামেন্ট নিয়েও অনেকে অনেক কথা বলছে। এই পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশনে আমেরিকা, রাশিয়া, ইউকে, ইইউ, চীন ও ভারতসহ বিভিন্ন দেশের মিলে ৮০ জন উপস্থিত ছিলেন। 

ডান্ডাবেড়ি পরানোর বিষয়ে হাইকোর্টের নির্দেশনা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আমি হাইকোর্টের এই রায়কে স্বাগত ও অভিনন্দন জানাই। আমি মনে করি এই রায় দেয়াতে যথেচ্ছভাবে যাকে-তাকে ডান্ডাবেড়ি পরানো বন্ধ হবে। যদিও সরকারের সেই রকম কোনো নির্দেশনা নেই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ডান্ডাবেড়ি না পরানোর জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল। এখন নিশ্চয়ই সেটি বন্ধ হবে। হাইকোর্টের এই রায় অত্যন্ত ভালো রায়।