ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ | ১২ শা‘বান ১৪৪৫

গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজে পিঠা উৎসব

গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজে পিঠা উৎসব

ছবি: গ্লোবাল টিভি

রাব্বি আহমেদ, মেহেরপুরঃ গ্রামীণ ঐতিহ্য ও নতুন প্রজন্মের কাছে হরেক রকমের পিঠার পরিচয় তুলে ধরতে মেহেরপুরের গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজে অনুষ্ঠিত হলো পিঠা উৎসব। 

বুধবার দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত এ উৎসবে শিক্ষাথর্থী ও শিক্ষকেরা ২৩টি স্টল সাজিয়েছিলেন গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী শত রকমের বাহারী ও মুখরোচক পিঠা নিয়ে। 

গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজ চত্ত্বরে এ পিঠা উৎসবে ছিল বেশ ভিন্নতা। গ্রামীণ লোকজ ঐতিহ্য দিয়ে নাম ছিল স্টলগুলোর। পিয়াসা, পাটি সাপটা, আন্দসা, চিতই, ভাপা, পুলি, সরু, মালাই রোল, চিটা রুটিসহ ১১১ ধরনের পিঠা সাজানো হয় ২৩টি স্টলে। ভোজন রসিকরা বিভিন্ন স্টল ঘুরে ঘুরে দেখছেন আর স্বাদ নিয়েছেন। 

পিঠা উৎসবে আসা অতিথি গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অনেক পিঠার সাথেই আমাদের পরিচয় হারিয়ে যাচ্ছে। অনেক পিঠার নাম জানা থাকলেও স্বাদ মনে নেই। আজকের এই পিঠা উৎসবে অনেক পিঠা খেয়ে ছোট বেলার অনেক স্মৃতিই মন করিয়ে দেয়। এভাবে শীতভর পিঠা উৎসব হোক গ্রামবাংলার প্রতিটি ঘরে ঘরে।

কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ খোরশেদ আলম বলেন, শীতের শেষের দিকে হলেও আমরা গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহি পিঠা নিয়ে পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এ উৎসবে বিলুপ্তি হওয়া সহ নতুন নতুন পিঠা নিয়ে স্টল সাজানো হয়েছে। নতুন প্রজন্মের ছেলে মেয়েসহ বিভিন্ন বয়সের মানুষ পিঠা খেতে এসেছেন।  উৎসবে পিঠা নিয়ে অংশ গ্রহণকারিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

এএইচ